আবার আরাফাত সানির বিরুদ্ধে মারধর এর অভিযোগ করে জামিন বাতিল চাইলেন নাসরিন

জাতীয় দলের ক্রিকেটার আরাফাত সানির জামিন বাতিল চাইলেন নিজেকে সানির স্ত্রী দাবি করা নাসরিন সুলতানা।

রবিবার তথ্য প্রযুক্তি মামলার অভিযোগপত্র আমলে নেওয়ার সময় তিনি আদালতে লিখিত আবেদন করে জানান, আরাফাত সানি জামিন নিয়ে যাওয়ার পর গত ১৭ এপ্রিল তাকে মারধর করেন। পাঁচ লাখ টাকার চেক দিয়ে তাকে মামলা তুলে নিতে হুমকি দেন। এছাড়া এ বিষয়ে আরাফাত সানির বিরুদ্ধে থানায় জিডি করতে গেলে থানা জিডি নেয়নি বলে আদালতকে জানান নাসরিন সুলতানা।

বাংলাদেশ সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক সাইফুল ইসলাম নাসরিনের আবেদন নাকচ করে অভিযোগ পত্রটি গ্রহণ করেন। একই সঙ্গে বিচারক আগামী ১৩ জুলাই অভিযোগ গঠনের বিষয়ে শুনানির জন্য দিন ধার্য করেছেন।

এর আগে আরাফাত সানি তার আইনজীবী এম জুয়েল আহম্মদের মাধ্যমে আত্মসমর্পণ করে জামিনের প্রার্থনা করেন। শুনানিতে জুয়েল আহম্মদ বলেন, আরাফাত সানির বিরুদ্ধে যে ঘটনার অভিযোগে মামলাটি করা হয়েছে তা সত্য নয়। তা ছাড়া আরাফাত সানি বর্তমানে লিগে খেলছে। সেখানে তিনি সর্বোচ্চ ২৩ উইকেট নিয়ে রেকর্ড গড়েছেন। এর আগে তিনি জামিনে ছিলেন। এ অবস্থায় তার জামিন বহাল রাখা হোক।

উল্লেখ্য, গত ১৫ ফেব্রুয়ারি এই মামলায় সানির জামিন মঞ্জুর করেন আদালত। এদিন আরাফাত সানির স্ত্রী দাবি করা নাসরিন সুলতানাও আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে রাষ্ট্রপক্ষে নজরুল ইসলাম শামীম আরাফাত সানির জামিনের বিরোধিতা করেন। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে বিচারক বলেন, আপনি (নাসরিন সুলতানা) আপোষের কথা বলে আরাফাত সানির জামিন নিয়েছেন। এ অবস্থায় জামিন বাতিলের আবেদনটি নামঞ্জুর করা হলো। এরপর বিচারক আরফাত সানির বিরুদ্ধে অভিযোগপত্রটি গ্রহণ করেন। আরাফাত সানির জামিন মঞ্জুর করেন।

এর আগে গত ২২ মার্চ ঢাকা সিএমএম আদালতে অভিযোগপত্রটি দাখিল করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদপুর থানার এসআই মো. ইয়াহিয়া।

Source: Jana Ojana News