শাকিবকে বর্তমান সংকট কাটিয়ে উঠার জন্য যে পরামর্শ দিলেন চার অভিনেতা

শাকিবকে বর্তমান সংকট কাটিয়ে উঠার জন্য যে পরামর্শ দিলেন চার অভিনেতা

কিছু্দিন ধরেই ঢাকাই চলচিত্রের নায়ক শাকিব যেন কিংকরতব্যবিমুড় হয়ে গেছেন।  একের পর এক বাঁধার সম্মুখীন হচ্ছেন তিনি।  অপু বিশ্বাসের সঙ্গে বিয়ে ও সন্তানের খবর প্রকাশ্যে আশা, পরিচালক সমিতি কর্তৃক নিষিদ্ধ হওয়া, শিল্পী সমিতির নির্বাচনের সময় হামলা ও থানায় জিডি।

এই সংকট কাটিয়ে উঠতে তাঁকে কিছু পরামর্শ দিলেন এই অঙ্গনের প্রবীণ চার অভিনেতা— রাজ্জাক, সোহেল রানা, ফারুক ও আলমগীর।  অভিনেতাকে কঠোর অবস্থান থেকে সরে এসে সবার সঙ্গে মিলেমিশে কাজ করার কথা বলেছেন।

শাকিব নিজের পায়ে নিজে কুড়াল মারছেন বলে এক বক্তব্যে দুঃখ প্রকাশ করেছেন অভিনেতা ফারুক।

তিনি বলেন, ‘শাকিব দিন দিন নিজেকে ছোট করছে।  ভোটগণনার দিন মধ্যরাতে কেন এফডিসিতে গেল সে? পরে আবার থানায়ও যাবে কেন! এসব করে কী বোঝাতে চায় সে? আমরা কি মরে গেছি! সে ভুল পথে রয়েছে।  এক্ষুনি উচিত সঠিক পথে ফিরে আসা।  দরকার হলে আমরা যারা প্রবীণ আছি, তাদের সঙ্গে আলোচনা করে সহজ সমাধান করা। ’

ফারুকের কথার রেশ ধরে সোহেল রানা বলেন. ‘নির্বাচনের রাতে শাকিবের ওপর আদৌ হামলা হয়েছে কি না জানি না।  আমি সেখানে ছিলাম না।  তবে বিভিন্ন গণমাধ্যম মারফত বিষয়টি শুনলাম।

এখন আমার প্রশ্ন, এত রাতে শাকিব কেন এফডিসিতে গেল? নির্বাচনের ভোটগণনা কক্ষে সে কোন এখতিয়ারে প্রবেশ করেছে? তা ছাড়া এফডিসিতে সে কী এমন বলেছে যে তার ওপর হামলা হয়েছে? একজন জনপ্রিয় শিল্পীর ওপর তো এমনি এমনি হামলা হতে পারে না।  আমি শাকিবকে ভুল পথ থেকে ফিরে আসার কথা বলছি।  সে চলচ্চিত্রের মধ্যমণি।  কারো কারো উসকানিতে নিজের অনেক ক্ষতি করেছে।  আর নয়।  এবার ভুলটা বোঝা উচিত। ’

অভিনেতা রাজ্জাক বলেন, ‘শাকিবের উচিত চলচ্চিত্রসংশ্লিষ্টদের সঙ্গে সব ভুল-বোঝাবুঝির অবসান ঘটিয়ে যত দ্রুত সম্ভব এক হয়ে কাজ করা।  তাতে তারই মঙ্গল হবে।  চলচ্চিত্রের জন্যও ভালো হবে। ’

একই মত পোষণ করেছেন আলমগীরও।  তিনি বলেন, ‘শাকিবের ক্যারিয়ার এখন চ্যালেঞ্জের মুখে।  মাথা গরম করে নয়, সবাইকে সঙ্গে নিয়ে কাজ করতে হবে তাকে।  তা না হলে আরো কঠিন অবস্থায় পড়তে হবে।