অবৈধদের সৌদি আরব ছাড়ার নির্দেশ

অবৈধদের সৌদি আরব ছাড়ার নির্দেশ

অবৈধ অভিবাসীদের ৯০ দিনের মধ্যে সৌদি আরব ছাড়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এই সময়ের মধ্যে তারা সৌদি আরব ত্যাগ করলে তাদের বিরুদ্ধে কোনো ধরনের শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হবে না বলে দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় রোববার জানিয়েছে। ২৯ মার্চ এই নির্দেশ কার্যকর হবে বলে জানানো হয়েছে।
সৌদি সরকার প্রকাশিত এক গেজেটে বলা হয়, সৌদি আরবের উপ প্রধানমন্ত্রী প্রিন্স মুহাম্মদ বিন নায়িফ রোববার ‘এ নেশন উইদাউট ভায়োলেটরস’ কর্মসূচির উদ্বোধন করে তিন মাসের এই ‘সাধারণ ক্ষমার’ ঘোষণা দেন।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মেজর জেনারেল মনসুর আল-তুর্কি জানিয়েছেন, সাধারণ ক্ষমার মেয়াদ অতিক্রম করে যাওয়ার পর ১৯টি মন্ত্রণালয় একযোগে অভিযান শুরু করবে।

গেজেটে প্রিন্স মুহাম্মদ জানান, অনুমতি ছাড়া বসবাস, ইকামা ছাড়াই অবস্থান, সরকারি অনুমতি না নিয়ে কাজ করা এবং সৌদি আরবে অবৈধ অনুপ্রবেশের মতো অপরাধের ক্ষেত্রে আগামী ২৯ মার্চ থেকে সাধারণ ক্ষমা প্রযোজ্য হবে। যারা এই সুযোগ নেবেন, তাদের কোনো শাস্তি ছাড়াই দেশে ফেরার সুযোগ দেয়া হবে। এমনকি ভবিষ্যতে কাজ নিয়ে আবারো বৈধভাবে সৌদি আরবে আসার সুযোগ থাকবে তাদের।

উল্লেখ্য, সৌদি আরবের নিয়ম অনুসারে অবৈধভাবে বসবাস বা কাজ করা কোনো বিদেশী নাগরিক ধরা পড়লে তাকে জরিমানা, কারাগার বা উভয় শাস্তির মুখোমুখি হতে হয়। সেইসাথে এই নাগরিককে নিজ দেশে ফেরত পাঠানোর আগে আঙুলের ছাপ রাখা হয় এবং পরে তাকে আর সৌদি আরবে কাজের জন্য আসার অনুমতি প্রদান করা হয় না।

কিন্তু তিন মাসের এই সাধারণ ক্ষমার সুযোগ যারা নেবেন, তাদের আঙুলের ছাপ নেয়া হবে না। সেইসাথে পরে তারা চাইলে সৌদি আরবে আবারো কাজের জন্য আসতে পারবেন বলে সৌদি আরবের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মেজর জেনারেল মনসুর আল জানান।

সূত্র : নয়া দিগন্ত