ট্রাম্পের সাথে রাশিয়ার 'যোগাযোগ' তদন্ত করছে এফবিআই

ট্রাম্পের সাথে রাশিয়ার ‘যোগাযোগ’ তদন্ত করছে এফবিআই

যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল তদন্ত সংস্থা এফবিআই প্রথমবারের মত বলেছে, তারা ২০১৬ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রুশ সরকারের কথিত হস্তক্ষেপের বিষয়টি তদন্ত করছে। এফবিআই পরিচালক জেমস কোমি বলেছেন নির্বাচনে বিজয়ী ডোনাল্ড ট্রাম্পের লোকজনের সাথে রুশ সরকারের কোন ব্যক্তির যোগাযোগ ছিল কি না, এবং ট্রাম্প শিবির ও রুশ সরকারের মধ্যে কোন সমন্বয় ছিল কিনা, সেটাও তদন্তের আওতায় থাকবে।

মি: কোমি আমেরিকান সংসদ কংগ্রেসের ইন্টেলিজেন্স কমিটির শুনানিতে বক্তব্য রাখছিলেন, যে শুনানি জনগণের জন্য উন্মুক্ত ছিল। কংগ্রেসের এই কমিটিও ট্রাম্প শিবির এবং রাশিয়ার সাথে সম্ভাব্য যোগাযোগের বিষয়টি তদন্ত করছে। মি: কোমি বলেন এখানে কোন অপরাধ সংঘটিত হয়েছিল কিনা, সেটাও যাচাই করা হবে।

ডোনাল্ড ট্রাম্প সব সময় রাশিয়ার সাথে যোগসাজশের অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। রাশিয়া বরাবরই আমেরিকার নির্বাচন প্রভাবিত করার অভিযোগ অস্বীকার করেছে।

হোটাইট হাউসে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প জেমন কোমিকে স্বাগত জানাচ্ছেন (জানুয়ারি ২২, ২০১৭)হোটাইট হাউসে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প জেমন কোমিকে স্বাগত জানাচ্ছেন (জানুয়ারি ২২, ২০১৭)

এফবিআই প্রধান আরো বলেন, গত বছর নির্বাচনের সময় তৎকালীন ওবামা প্রশাসনের নির্দেশে ডোনাল্ড ট্রাম্পের টেলিফোনে আড়ি পাতা হতো বলে যে অভিযোগ মি: ট্রাম্প করেছেন, সেটা সমর্থন করে এমন কোন প্রমাণ তিনি পান নি।

সম্প্রতি প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প তাঁর একটি টুইটে অভিযোগ করেন যে নির্বাচনের সময় তাঁর টেলিফোনে আড়ি পাতা হতো। মি: কোমি বলেন অনেক যত্নের সাথে খোঁজাখুঁজির পরই আড়ি পাতার বিষয়ে কোন প্রমাণ পাওয়া যায়নি। মি: কোমি বলেন তদন্তটা ‘অত্যন্ত জটিল’ এবং তিনি কোন সময়সীমা বেঁধে দিতে পারছেন না।

সূত্র: BBC