মুসলিমদের নিয়ে কি বলেছিলেন যোগী আদিত্যনাথ? জানলে আপনিও রাগান্বিত না হয়ে পারবেন না...

মুসলিমদের নিয়ে কি বলেছিলেন যোগী আদিত্যনাথ? জানলে আপনিও রাগান্বিত না হয়ে পারবেন না…

সম্প্রতি বিধানসভা নির্বাচনে উত্তর প্রদেশে বিপুল বিজয় পায় ক্ষমতাসীন হিন্দু জাতীয়তাবাদী দল বিজেপি।

কট্টর হিন্দুত্ববাদী অবস্থান এবং মুসলমান বিরোধী মন্তব্যের জন্য পরিচিত হিন্দু সন্ন্যাসী যোগী আদিত্যনাথ শনিবারই লখনৌতে পার্টির বিধায়ক দলের নেতা নির্বাচিত হয়েছেন।

কিন্তু কেন তিনি এত বিতর্কিত ? কি বলেছিলেন তিনি মুসলিমদের নিয়ে ? নিচে তারই কয়েকটি তুলে ধরা হলো।

নির্বাচনী প্রচারের সময়েও যোগী আদিত্যনাথ বলেছিলেন যে রাজ্যের সমাজবাদী পার্টির সরকার উন্নয়ন করেছে শুধু কবরস্থানগুলোর। কিন্তু বি জে পি সরকার এলে রামমন্দিরও প্রতিষ্ঠা করবে।

গতবছর জুন মাসেও তিনি ওই রামমন্দিরের প্রসঙ্গে বলেছিলেন, “যেখানে অযোধ্যার বিতর্কিত স্থাপনা ভেঙ্গে ফেলার থেকে কেউ আটকাতে পারে নি, তো মন্দির তৈরি করা কে আটকাবে।”

২০১৬ সালের অক্টোবরে যোগী আদিত্যনাথের আরেকটি বিতর্কিত মন্তব্য ছিল বকরি ঈদকে কেন্দ্র করে।

তিনি বলেছিলেন, “মূর্তি বিসর্জন দেওয়ার সময়ে সবার মনে হয় পরিবেশ দূষণ হচ্ছে, কিন্তু বকরি ঈদের দিন যে হাজার হাজার নিরীহ পশু কেটে ফেলা হয় কাশীতে, ওই সব পশুদের রক্ত যখন সরাসরি গঙ্গায় গিয়ে পড়ে, তখন দূষণ হয় না?”

২০১৫ সালেই যোগব্যায়াম নিয়ে করা তার একটি মন্তব্য ছিল এরকম: “যারা যোগব্যায়ামের বিরোধিতা করছে, তাদের ভারত ছেড়ে চলে যাওয়া উচিত। সূর্য নমস্কারকে যদি কেউ সম্মান দিতে না পারে, তার সমুদ্রে ডুবে মরা উচিত।”

তবে সাম্প্রতিক কালে সবথেকে বিতর্কিত মন্তব্য ছিল এটি: “যদি অনুমতি পাই তাহলে দেশের প্রত্যেকটা মসজিদে গৌরী-গণেশের মূর্তি স্থাপন করে দেব। আর্যাবর্তে আর্যরা তৈরি হয়েছিলেন, হিন্দুস্তানে আমরা হিন্দু করে দেব। পুরো পৃথিবীতে গেরুয়া ঝাণ্ডা উড়বে।”