এখন থেকে তার ছাড়াই চলবে বৈদ্যুতিক যন্ত্রপাতি!

এখন থেকে তার ছাড়াই চলবে বৈদ্যুতিক যন্ত্রপাতি! (ভিডিও সহ)

মার্কিন প্রযুক্তি উদ্যোক্তা প্রতিষ্ঠান ওয়াইট্রিসিটির পক্ষথেকে জানানো হয়েছে ভবিষ্যতে ওয়াই-ফাই প্রযুক্তির মতোই ঘর-বাড়িতে তারহীন প্রযুক্তির বিদ্যুৎ ব্যবস্থার প্রচলন শুরু করা যাবে।

মার্কিন কোম্পানি ওয়াইট্রিসিটি ওয়্যারলেস দীর্ঘদিন বিদ্যুৎ সঞ্চালন ব্যবস্থার উন্নয়নে কাজ করে গেছে। এই প্রতিষ্ঠানের প্রধান নির্বাহী কেটি হেল জানিয়েছেন তারা ‘রেজোনেন্স’ বা তারবিহীন অনুনাদ প্রযুক্তি নিয়ে কাজ করেছেন এবং তারা এই প্রযুক্তির সাহায্যে তার ছাড়াই বিদ্যুৎ দিয়ে চালিত বিভিন্ন যন্ত্রপাতি চালাতে সক্ষম হয়েছেন। রেজোনেন্স প্রযুক্তিতে বাতাসে বিদ্যুৎ ছড়িয়ে দেওয়ার পরিবর্তে বিশেষ চৌম্বক ক্ষেত্র তৈরি করে। ঐ ক্ষেত্রের মাঝে যদি অন্য কোন বিদ্যুৎ রিসিপ্টর থাকে তবে তা ঐ ক্ষেত্র থেকে বিদ্যুৎ টেনে নিয়ে বাতি জ্বালাতে বা পাখা চালাতে সক্ষম হবে।

ওয়াইট্রিসিটি ওয়্যারলেস এর কর্ণধার কেটি বলেন, “আমরা দীর্ঘদিন ধরে কিভাবে বিদ্যুৎ বেতার ব্যবস্থাপনায় নিয়ন্ত্রণ করা যায় তার বিষয়ে কাজ করে আসছিলাম। ইতোমধ্যে আমরা এই প্রক্রিয়ার জন্য একটি প্রযুক্তি তৈরি করেছি। আমাদের এই প্রযুক্তিতে মূলত একটি ‘সোর্স রেজোনেটর’ বা বৈদ্যুতিক কয়েল তৈরি হয়, এর সঙ্গে বিদ্যুৎ যুক্ত করলে তা চৌম্বক ক্ষেত্র তৈরি করে। এর কাছাকাছি যদি আরেকটি কয়েল আনা যায় তখন এটি থেকে বৈদ্যুতিক চার্জ উৎপন্ন হয়। এবং তা দিয়ে বিভিন্ন বৈদ্যুতিক যন্ত্রপাতি চালানো সম্ভব হয়।”

তবে বিহীনভাবে কিভাবে বিদ্যুৎ নিরাপদে স্থানান্তর হবে সেই বিষয়ে বিস্তারিত কিছুই জানানো হয়নি। ওয়াইট্রিসিটি ওয়্যারলেস এর পক্ষথেকে বলা হয়েছে এটি সম্পূর্ণ নিরাপদ একটি পদ্ধতি এতে মানুষের কোন ক্ষতি হবেনা। তারা একে সম্পূর্ণ ওয়াই-ফাই প্রযুক্তির সাথে তুলনা করেছেন।

যদি সত্যি বেতার বিদ্যুৎ প্রবাহ সম্ভব হয়, তবে অদূর ভবিষ্যতে আমরা পকেটে রেখে মোবাইল ফোনে চার্জ দেয়া সহ আরও অনেক ক্ষেত্রে বেতার বিদ্যুৎ প্রবাহ ব্যবহার দেখবো।

সূত্রঃ সিএনএন, ইয়াহু নিউজ