সোনালী ব্যাংকে ৭২ হাজার টাকাসহ কিশোর আটক

মাদারীপুরে সোনালী ব্যাংকের প্রধান কার্যালয় থেকে ৭২ হাজার টাকা ও একটি দামি মোবাইল ফোনসহ এক ১৩ বছরের কিশোরকে আটক করে পুলিশের কাছে সোপর্দ করেছে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ। তবে এ ঘটনায় এখনো কোনো মামলা হয়নি।

সোমবার দুপুরে শহরের পুরান বাজার সোনালী ব্যাংক কার্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে।

আটক জহির কালকিনি উপজেলার কাষ্টঘর এলাকার লোকমান সরদারের ছেলে।

ব্যাংকের এসপিও আমিনুর রহমান ঢাকাটাইমসকে বলেন, ‘ব্যাংকের চারপাশে কিশোরটি ঘুরাঘুরি করছিল। তার চলাফেরায় সন্দেহ হওয়ায় আটক করা হয়। পরে তার দেওয়া তথ্যমতে বাংকের টয়লেটের ভেতর থেকে ৭২ হাজার টাকা ও একটি দামী মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়।’

তিনি বলেন, ‘আজ আলী আজগর নামে এক গ্রাহকের ৯৩ হাজার ছয়শ টাকা চুরি হয়েছে। তবে তা ব্যাংকের মধ্যে ঘটেনি। ব্যাংক থেকে টাকা তুলে যাওয়ার পর পথে কেউ কৌশলে তার ব্যাগ থেকে টাকা বের করে নিয়ে যায়।’

পরে ব্যাংকের সিসিটিভির ফুটেজ দেখে ছেলেটির গতিবিধি লক্ষ্য করে সন্দেহ হয় বলে জানান এই কর্মকর্তা। তবে উদ্ধার হওয়া টাকা ওই টাকা এবং মোবাইল ফোনটির প্রকৃত মালিক কে সে বিষয়ে কিছু বলতে পারেননি তিনি।

আমিনুর রহমান বলেন, ‘ছেলেটি যে কারো পকেট বা ব্যাগ কেটে টাকা হাতিয়ে নিতে পারে তা কল্পনা করা যায় না। তবে আমার মনে হয় এর পেছনে বড় একটা চক্র কাজ করছে। ফুটেজ দেখে গেছে, ছোট ছেলেটি বার বার ব্যাংকের চারদিকে ঘোরাঘুরি করছে এবং বয়স্ক লোকদের কাছাকাছি তাকে বেশি দেখা গেছে।’

এ বিষয়ে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জিয়াউর মোর্শেদ ঢাকাটাইমসকে বলেন, ‘সোনালী ব্যাংক কর্তৃপক্ষের অভিযোগের ভিত্তিতে জহির নামে এক কিশোরকে আটক করা হয়েছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। কেউ মামলা করলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

Comments

comments

SHARE