মাত্র ৮৮ টাকায় পাবেন বাড়ি!

মাত্র ৮৮ টাকায় পাবেন বাড়ি!

মাত্র ৮৮ টাকায় বাড়ি পাওয়া যাবে এমন কথা শুনলে হয়তো সবাই পাগল ভাববে। কিন্তু ঘটনাটি সত্যি। মাত্র ৮৮ টাকায় পাওয়া যাচ্ছে তাও সম্পূর্ণ বাড়ি!

এমন একটি খবর সকলকে হতবাক করে। মাত্র ৮৮ টাকায় পাওয়া যাচ্ছে তাও আবার সম্পূর্ণ বাড়ি। আবার যেমন তেমন বাড়ি নয়: বেডরুমের জানালা খুলুন অথবা রান্নাঘরের খিড়কি। আবার সামনে রয়েছে চোখ জুড়ানোর দৃশ্য। সেইসাথে পাহাড়, সবুজ ঘাসের তৃণভূমি- সবই রয়েছে এই বাড়িতে।

অবিশ্বাস্য এই ঘটনাটি যাচাই করতে হলে আপনি ইতালির সিসিলি, গাংগি, কেরেগা লিগার, পিগমন্ট অথবা লেকে নি মার্সির মতো জায়গায় গিয়ে যাচাই করতে পারেন। এই অভিনব দামে বাড়ি বিক্রির ঘোষণা দিয়েছেন স্বয়ং সিসিলির মেয়র গুইডো গোত্‍জানো।

কিন্তু হঠাৎ এমন বদান্যতা কেনো তা খুঁজতে গিয়ে জানা গেলো এর পেছনে একটা কারণ রয়েছে। প্রথমত, এই স্থানে প্রচণ্ড ঠাণ্ডা পড়ে। এত্‍না মাউন্টেনের কাছাকাছি বলে হওয়ায় এবং উচ্চতা ৫ হাজার ফুটের উপরে, যে কারণে ঠাণ্ডার সময় বরফ পড়াটা খুবই স্বাভাবিক ব্যাপার। দ্বিতীয়ত, শহুরে সুযোগ-সুবিধার সঙ্গে এই অঞ্চলের একেবারেই সংযোগ নেই। তবে পুরো এলাকা একেবারে সুনসান নীরবতা বিদ্যমান। স্থানীয় কিংবদন্তী রয়েছে যে, এখানে নাকি ভূতের উপদ্রব বেশি।

প্রকৃত ঘটনা হলো প্রায় ৪০০-৫০০ বছর আগে তৈরি হওয়া এই এলাকা অনেক ঝড়ঝাপটার মধ্যে দিয়ে অতিবাহিত হয়েছে। কখনও প্রাকৃতিক দুর্যোগ, আবার কখনও জলদস্যুদের আক্রমণে বারবার ঘর-বাড়ি ছেড়ে এখানকার বাসিন্দারা অন্যখানে চলে গেছেন।

মেয়র নিজেই সংবাদ মাধ্যমকে বলেছেন, ‘প্রায় দু’দশক আগে ৯ হাজারেরও বেশি লোক এই অঞ্চল হতে আর্জেন্টিনায় পাড়ি জমিয়েছেন। কেওবা চলে গেছেন দেশেরই অন্য অঞ্চলে কিংবা ইউরোপের অন্য কোনো দেশে। যে কারণে এখানে এমন অনেক বসতি রয়েছে, যা ১৯৭০ সালের পর হতেই জনমানব শূন্য। আর সে কারণেই এমন অভিনব অফার দিয়ে ওই এলাকায় মানুষকে বসবাসে আকৃষ্ট করার প্রয়াস হিসেবে।’

তবে একটা শর্ত জুড়ে দিয়েছেন বাড়ি কেনার ক্ষেত্রে। আর সেটি হলো, বাড়ি তো এক ইউরোতেই পাবেন। তবে কেনার পর মেরামতের জন্য ১৮ হাজার পাউন্ড অর্থাৎ প্রায় ১৮ লাখ টাকা খরচও করতে হবে। এতে করে বাড়িগুলো তার পুরনো গৌরব ফিরে পাবে। তবে অফার যায়ই হোক। সাধারণভাবে এতো কম টাকায় বাড়ি সেটিই বড় কথা।

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.